আগামিকাল ফাইনালে বাংলাদেশ দলের একাদশে আসছে বিশেষ এক পরিবর্তন

শেষ চারটি এশিয়া কাপের মধ্যে ৩ টিতেই ফাইনাল খেলেছে বাংলাদেশ । আইসিসির সর্বশেষ নিয়ম অনুযায়ী আসন্ন বিশ্বকাপ অনুযায়ী এশিয়া কাপের ফর্মেট নির্ধারিত হয়ে থাকে ।

এর আগে ২০১২, ২০১৪, ২০১৬ এবং এবার ২০১৮ তে এশিয়া কাপ মাঠে গড়াচ্ছে । এশীয়া কাপের প্রথম টুর্নামেন্ট অনুষ্টিত হয়েছিল আরব আমিরাতের শারজায়, ১৯৮৪ সালে ।

বাংলাদেশ দল ক্রমাগত উন্নতির কারনে শেষ চারবারের মধ্যে তিনবারই ফাইনালে উঠল । তবে দুঃখের খবর প্রতিবারই টাইগাররা হেরেছে জয়ের দ্বারপ্রান্তে গিয়ে ।

গতকালকের ম্যাচটি ছিল বাংলাদেশের জন্য বিশেষ ম্যাচ । কেননা গতকালই ওডিআই ফর্মেটে পাকিস্থানের বিপক্ষে প্রথম জয় পেয়েছে মাশরাফিরা । কাল আগের সব ফাইনালের দুঃখ ঘুচাতে চায় টাইগাররা ।

তবে এখনো অনেক কাজ বাকি ম্যাশদের । তাই আগামিকাল ২৮ সেপ্টেম্বর আট-শাট নেমেই মাঠে নামছে টাইগাররা । এবার যে কাপটা চাই ই চাই ।

তবে এবার মুকুট কি ভারতের হাতেই যাচ্ছে নাকি প্রথমবারের মত বাংলাদেশ পরতে যাচ্ছে তা দেখার জন্য সবাই অপেক্ষা করতে হচ্ছে আরো ২ টি দিন । মুমিনুলের পরিবর্তে খেলতে পারেন আরিফুল।

বাংলাদেশ একাদশ-লিটন দাস, সৌম্য সরকার, আরিফুল , মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ, মুশফিকুর রহিম, মোহাম্মদ মিথুন, ইমরুল কায়েস, মাশরাফি বিন মুর্তজা (অধিনায়ক), মেহেদী হাসান মিরাজ, মুস্তাফিজুর রহমান, রুবেল হোসেন।

কালকে এমন কাউকে ওপেনিংয়ে দেখতে পারেন যে কখনো ওপেন করেনি- মাশরাফি- 

এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্ব লড়াইয়ের মর্যাদায় আগামীকাল ভারতের বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ দল। এই ম্যাচকে ঘিরে উত্তেজনার শেষ নেই। তবে আগামীকালকের ম্যাচে বাংলাদেশ দলে আসতে পারে পরিবর্তন।

এমনি ইঙ্গিত দিয়েছেন অধিনায়ক মাশরাফি। এই ব্যাপারে তিনি বলেন ,’ “দেখেন এই আসরে আমরা নিজেরাও বিস্মিত হয়েছি। আপনাদেরও বিস্মিত করেছি। কালকে হয়তো এমন কাউকে ওপেনে দেখতে পারেন, যে আগে ওপেন করে নি (হাসি…)। তো সবকিছুর জন্য আমরা প্রস্তুত আছি। আপনারাও প্রস্তুত থাকেন।”

মাশরাফি আরো বলেন ,’ প্রত্যেকটা ম্যাচে তো এই ধরণের উদ্বেগ নিয়ে নেমেছি। আপনি যদি দেখেন আফগানিস্তানের সাথে ম্যাচেও এমন হয়েছে (মিডল অর্ডার ভাল খেলেনি)। তবে সবসময় যদি এভাবে উইকেট পরে তাহলে মিডল অর্ডারের জন্য বাড়তি চাপ হয়।’

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*