সহবাসের সময় প্রেমিকার কামড়ে পুরুষাঙ্গ হারিয়ে প্রেমিকের করুন মৃত্যু

প্রথমে প্রেমভালোবাসা,পরে দৈহিক মিলন এবং শেষ পরিমান মৃত্যু !এই ধরনের অপরাধ যেন দিন দিন বেরেই চলছে মিলছেনা কোন সমাধান!
বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাস করার অভিযোগ আগেই করেছিলেন। এ নিয়ে প্রেমিক-প্রেমিকার মধ্যে মনোমালিন্যও চলছিল। শেষে ফাঁকা বাড়িতে ডেকে এনে প্রেমিকের পুরুষাঙ্গ কামড়ে রক্তাক্ত করে দেন ক্ষুব্ধ প্রেমিকা।

ঘটনায় প্রেমিকের মৃত্যু হয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে, নিহত প্রেমিকের নাম হাবিবুর রহমান (৩৫)। বাংলাদেশের কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার আল্লারদর্গা এলাকার গাড়া দাইড়পাড়া গ্রামের মঙ্গলবার বিকেলের ঘটনা। এদিন রহমান মাছুরা নামে এক মহিলার সঙ্গে যৌন মিলনে লিপ্ত ছিলেন প্রেমিক হাবিবুর রহমান। প্রেমিকের আচরণে ক্ষুব্ধ হয়ে প্রতিশোধ নিতেই প্রেমিকের পুরুষাঙ্গে কামড় বসিয়ে দেন মাছুরা। যন্ত্রণায় চিত্কার শুরু করলে পাড়া প্রতিবেশীরা তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যান।রাতে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে মৃত্যু হয় তাঁর।

পুলিশ ও স্থানীয়দের কথায়, আল্লারদর্গার মৃত সাইদ মাস্টারের ছেলে হাবিবুর রহমানের সঙ্গে ওই এলাকার গাড়া দাইড়পাড়ার স্বামী পরিত্যক্তা মাছুরা খাতুনের (৩২) বেশ কয়েকবছর ধরেই সম্পর্ক ছিল। বিয়ে করবেন বলে মাছুরাকে প্রতিশ্রুতিও দিয়েছিলেন। পরে সেই প্রতিশ্রুতি থেকে সরে দাঁড়ালে রহমান প্রতিশোধের সুযোগ খোঁজে। বোনের বাড়িতে ডেকে নিয়ে প্রেমিককে উচিত শিক্ষা দেয় ক্ষুব্ধ প্রেমিকা। দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত পুলিশ অফিসার শাহ দারা খান জানিয়েছেন, দীর্ঘদিন ধরেই মাছুরা খাতুনের সঙ্গে সম্পর্ক ছিল হাবিবুরের। মাছুরাকে বিয়ে করতে অনিচ্ছার কথা জানালে ক্ষুব্ধ প্রেমিকা এই নিষ্ঠুর আচরণ করে বসেন। ঘটনায় অভিযুক্ত মাছুরা খাতুনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সূত্র: মানবজমিন।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*