আমার বাঁ হাত ও পা প্যারালাইজড: খালেদা জিয়া

‘আমার বাঁ হাত প্যারালাইজড, বাঁ পা নাড়াতে পারছি না। আমি প্রতিদিন আসতে পারব না। সে রকম শারীরিক সুস্থতাও আমার নেই। আপনাদের যত ইচ্ছা সাজা দিন।’ বলছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া।আজ বুধবার (৫ সেপ্টেম্বর) বেলা সোয়া ১২টার দিকে নাজিমউদ্দিন রোডের পুরনো কারাগারের ভেতরে বিশেষ জজ আদালতের অস্থায়ী এজলাসে হাজির হয়ে নিজের অসুস্থতার কথা তুলে ধরে এ কথা বলেন তিনি।ঢাকার পঞ্চম বিশেষ জজ মো. আখতারুজ্জামানের নতুন এ এজলাসে আসামিপক্ষের আইনজীবীদের অনুপস্থিতিতে আধা ঘণ্টারও কম সময় আদালতের কার্যক্রম চলার পর শুনানি মুলতবি করেন আদালত।

আগামী ১২ ও ১৩ সেপ্টেম্বর নতুন তারিখ ঠিক করেন আদালত।এদিন দুপুর ১২টা ১৪ মিনিটে খালেদা জিয়াকে কারাগারে তার কক্ষ থেকে হুইল চেয়ারে করে আদালতের এজলাসে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে আদালতের কার্যক্রম শেষে হুইল চেয়ারে করে তাকে কারাগারে নিজ কক্ষে নিয়ে যাওয়া হয়।খালেদা জিয়া বলেন, এখানে বিচার পাওয়া যাবে না। তাকে জেলে রাখতেই এ আয়োজন করা হয়েছে। তার শারীরিক অবস্থা খুবই খারাপ।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, তার আইনজীবীদের আসতে দেয়া হচ্ছে না।জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় কেন্দ্রীয় কারাগারে অস্থায়ী এই আদালত বসানো হয়। জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলার রায়ে এই কারাগারে সাজা ভোগ করছেন খালেদা জিয়া।এর আগে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় গত ৮ ফেব্রুয়ারি একই বিচারক তাকে পাঁচ বছর কারাদণ্ড দেন। এরপর থেকে তিনি নাজিমউদ্দিন রোডের পুরনো কারাগারের আছেন।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*